এইচএসসিতে পাসের হার ৬৮.৯১


উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষায় এ বছর ১০টি শিক্ষাবোর্ডে গড় পাশের হার ৬৮ দশমিক ৯১ শতাংশ। ৮টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডে পাশের হার ৬৬ দশমিক ৮৪ শতাংশ। কারিগরি বোর্ডে পাশের হার ৮১ দশমিক ৩৩ শতাংশ এবং মাদ্রাসা বোর্ডে পাশের হার ৭৭.০২ শতাংশ। রবিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আনুষ্ঠানিক ফল হস্তান্তর করে সেখানে এক সংবাদ সম্মেলনে তথ্যটি জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এসময় তিনি আরও বলেন, এ বছর সারাদেশে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৭ হাজার ৭২৬। এর মধ্যে ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৩ হাজার ২৪১ জন। মাদ্রাসা বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ হাজার ৮১৫ জন এবং কারিগরি বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ৬৬৯ জন শিক্ষার্থী। দিনাজপুর বোর্ডে পাশের হার ৬৫ দশমিক ৪৪ শতাংশ। রাজশাহী বোর্ডে পাশের হার ৭১ দশমিক ৩০ শতাংশ। বরিশাল বোর্ডে পাশের হার ৭০ দশমিক ২৮ শতাংশ। এদিকে দুপুর ২টায় সচিবালয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনের পর শিক্ষার্থীরা সংশ্লিষ্ট বোর্ডের ওয়েবসাইট, নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট ও মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে পারবেন। এ বছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১০টি শিক্ষাবোর্ডে এবার ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। গত ২রা এপ্রিল থেকে ১৫ই মে এইচএসসির তত্ত্বীয় এবং ১৬ই থেকে ২৫ই মে ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
ফল জানা যাবে যেভাবে
পরীক্ষার্থীরা শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট (http://www.educationboard.gov.bd) থেকে ফল জানতে পারবেন। যে কোনো মোবাইল থেকে এসএমএস করে পরীক্ষার ফল জানতে হলে মেসেজ অপশনে গিয়ে HSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর লিখে আবার স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে সন লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

অন্য বিডি আপডেট